• Home
  • সংস্কৃতি
  • এবার পুজোয় কলকাতা মাতাবে ডোকরা শিল্পের অলংকার
সংস্কৃতি

এবার পুজোয় কলকাতা মাতাবে ডোকরা শিল্পের অলংকার

Top News Today বিশেষ প্রতিবেদন ৮ অক্টোবরঃ   এবছর বর্ধমানের দরিয়াপুরের ডোকরা শিল্পীদের মাথায় বোধহয় দুর্গামায়ের আশিস কৃপায় ভাগ্যের শিকে ছিড়েছে। বহুদিন পর হাসি ফুটেছে এই শিল্পীদের মুখে। বিগত কয়েক বছরের ইতিহাস ভেঙে এই কারিগরেরা এখন লাভের মুখ দেখছে।

দরিয়াপুর ডোকরা গ্রামে প্রায় ৩৫টি ঘর রয়েছে এই ডোকরা শিল্পী। এবার দুর্গাপূজায় কোলকাতাসহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জায়গা থেকে ডোকরার তৈরি বিভিন্ন অলংকার প্রস্তুত করার বিপুল বরাত পেয়েছেন এই শিল্পীরা। মূলত গালা ও পেতলকে গলিয়ে তৈরি হয় এই ডোকলা শিল্পের নানা অলংকার। কানের দুল, গলার হার, লকেট, মা দুর্গার মুখের আদল এমনকি গোটা দুর্গা মূর্তিরও  অর্ডার হয়েছে প্রচুর। এবছর কলকাতার বুকে আধুনিক ফ্যাসানের মাঝে একটি বিশেষ স্থান করে নিয়েছে এই ডোকরা শিল্প। তাই দিনরাত এক করে দ্রুত গতিতে  কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন এই শিল্পীরা।

শিল্পী সাধনা কর্মকার, রাজু কর্মকার, সৌরভ কর্মকার, শুভ কর্মকার প্রমুখ কারিগরদের কথায় জানা গেল ডোকরা শিল্পীদের শিল্পকর্ম নিয়ে প্রতি বছর বর্ধমানের দরিয়াপুরে একটি মেলা বসে। সেই মেলাতে সাধারণ ক্রেতার সংগে নানা জায়গা থেকে বড় বড় ব্যবসায়ী আসেন এবং চাহিদামত শিল্পকর্ম তৈরির বরাত দেন। ডোকরার শিল্পকর্ম ইতিমধ্যে বিদেশেও নাম কুড়িয়েছে। তাছাড়া সারা বছর কমবেশি ঘর গোছানোর কিছু চাহিদাও থাকে। শিল্পী শুভ কর্মকার জানান এবছর তিনি নিজেই ৫ হাজার মা দুর্গার বিভিন্ন অলংকার ও মূর্তি তৈরির অর্ডার পেয়েছেন। মূলত বেশির ভাগ অর্ডার এসেছে কলকাতা থেকে। তাই আধুনিকতার সংগে খাপ খাইয়ে ডোকরা শিল্প সম্ভ্রান্ত শিল্পকর্ম রূপে পৌছে যাওয়ায় এই শিল্পীরা খুব খুশী।  তবে একটিই আক্ষেপ রয়েছে শিল্পীদের মনের মধ্যে, তা হলো রাজ্য সরকার ডোকরা শিল্পের জন্য কিছু পদক্ষেপ নিলেও আক্ষরিক অর্থে তা কোন ফলপ্রসূ হয়নি।

 

Related posts

উত্তমের অ্যান্টনি ফিরিঙ্গি স্মৃতি বিজড়িত জাড়া জমিদার বাড়ির পুজো

Topnewstoday

Topnewstoday

হরিদেবপুরের পুজো উদ্বোধনে শোভন

Topnewstoday

Leave a Comment