তৃণমূলের পোষ্টার ছেড়ার অভিযোগ কংগ্রেসের বিরুদ্ধে

Zoom In Zoom Out Read Later Print

কংগ্রেসের জেলা সাধারণ সম্পাদক কালী সাধন রায় বলেন, কংগ্রেসের প্রচারে ভয় পেয়ে তৃণমূল কংগ্রেস নিজেরাই এই ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে কংগ্রেসের ঘাড়ে দোষ চাপাচ্ছে। এটা তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফলে ঘটনা ঘটেছে। কংগ্রেস পোস্টার ব্যানার ছেড়ার সংস্কৃতিতে বিশ্বাস করে না। এটা ভিত্তিহীন অভিযোগ।পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

নিজস্ব সংবাদদাতা, মালদা, ১৫ এপ্রিল;

রাতের অন্ধকারে তৃণমূলের পোষ্টার ছেড়ার অভিযোগ কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে মালদার ইংরেজবাজার থানার ৩ নম্বর ওয়ার্ডে। ঘটনায় লিখিত অভিযোগ দায়ের ইংরেজবাজার থানার। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে রবিবার গভীর রাতে তিন নম্বর ওয়ার্ডের সমস্ত এলাকায় তৃণমূল কংগ্রেসের ব্যানার পোস্টার ও পতাকা লাগানো হয়। সোমবার সকাল বেলা এলাকার বাসিন্দারা দেখতে পায় কে বা কারা ব্যানার পোস্টার ছিড়েখুঁড়ে সেগুলি নোংরা স্তুপের মধ্যে ফেলে দিয়েছে। আর ভোটের মুখে এই পোস্টার ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। তিন নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর পরিতোষ চৌধুরী বলেন, যেভাবে এলাকায় এলাকায় কংগ্রেস ও বিজেপি সন্ত্রাস করছে। তাতে মনে হচ্ছে কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এই ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে। আমরা সমস্ত বিষয় নিয়ে থানায় অভিযোগ জানিয়েছে।

দক্ষিণ মালদার তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী ডাক্তার মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, এদের কোন অস্তিত্ব নেই তাই আতঙ্কিত হয়ে এই ধরনের ঘটনা ঘটেছে। রাতের অন্ধকারে কংগ্রেস তৃণমুলের পতাকা ছিড়ে দিয়ে ভোটে নিজেদের অস্তিত্ব জাহির করছে। আমরা নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানিয়েছে।

কংগ্রেসের জেলা সাধারণ সম্পাদক কালী সাধন রায় বলেন, কংগ্রেসের প্রচারে ভয় পেয়ে তৃণমূল কংগ্রেস নিজেরাই এই ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে কংগ্রেসের ঘাড়ে দোষ চাপাচ্ছে। এটা তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফলে ঘটনা ঘটেছে। কংগ্রেস পোস্টার ব্যানার ছেড়ার সংস্কৃতিতে বিশ্বাস করে না। এটা ভিত্তিহীন অভিযোগ।পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

See More

Latest Photos