গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারের সংর্ঘষে আহত ৪

Zoom In Zoom Out Read Later Print

পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে, ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা গা ঢাকা দিয়েছে। তাদের খোঁজে তল্লাশী শুরু হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

নিজস্ব সংবাদদাতা, মালদা, ১৪ এপ্রিল;

ঝড়ে পরে যাওয়া গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারের সংর্ঘষে দুই পরিবারের আহত চারজন। গুরুতর আহতরা মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার সকালে মালদার মানিকচক থানার ডোমহাট এলাকায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

জানা গেছে,আহতরা হল গয়া নাথ মন্ডল, বৈদ্যনাথ মন্ডল, বনমালী মন্ডল ও সর্বেশ্বর মন্ডল। তাদের পরিবারের সদস্যরা জানায়, প্রায় এক বিঘা জমিকে কেন্দ্র করে গয়ানাথ মন্ডল ও অপূর্ব দাস এই দুই পরিবারের মধ্যে বিবাদ ছিল দীর্ঘদিনের। এই নিয়ে এর আগেও বেশ কয়েকবার জমি নিয়ে ঝামেলাকে কেন্দ্র করে মানিকচক থানায় অভিযোগও দায়ের হয়। গন্ডগোলের সূত্রপাত রবিবার সকালবেলায়। জানা গেছে গত শনিবার রাতে কালবৈশাখীর ঝড়ে সেই বিতর্কিত জমির একটি নিম গাছ পড়ে যায়। আর ঝড়ে পড়ে যাওয়া নিমগাছের ভাগ নিয়েই বিবাদ শুরু হয়। গয়া নাথ মন্ডলের লোকজন নিমগাছটি কাটতে গেলে বাধা দেয় অপূর্ব দাসের পরিবারের লোকজনেরা। শুরু হয় বাকবিতণ্ডা। অভিযোগ সেই সময় মারমুখী হয়ে ওঠে অপূর্ব দাসের পরিবারের লোক জনেরা। তারা চড়াও হয় গয়া নাথ মন্ডল ও তাদের পরিবারের লোকজনদের উপর। অভিযোগ বাঁশ, লাঠি, হাসুয়া নিয়ে গয়া নাথ মন্ডল ও তার পরিবারের উপর চড়াও হয় অপূর্ব দাসের পরিবারের লোকজনেরা। গয়ানাথের ওপর চড়াও হয়ে মারধর ও হাঁসুয়া দিয়ে কুপিয়ে খুনের চেষ্টা করে। ঘটনায় গ্রামবাসীরা ছুটে আসতেই অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়। আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য মানিকচক গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাদের মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তর করেন চিকিৎসকরা। ঘটনায় আহতদের পরিবারের পক্ষ থেকে অপূর্ব দাস সহ ছয় জনের বিরুদ্ধে মানিকচক থানা অভিযোগ দায়ের করা সয়েছে।

পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে, ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা গা ঢাকা দিয়েছে। তাদের খোঁজে তল্লাশী শুরু হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

See More

Latest Photos