পুত্রবধূকে খুনের অভিযোগ শাশুড়ির বিরুদ্ধে

Zoom In Zoom Out Read Later Print

পারিবারিক বিবাদের জেরে পুত্রবধূকে খুন করার অভিযোগ উঠল শাশুড়ির বিরুদ্ধে। গলায় ফাঁস দিয়ে খুনের অভিযোগ । ঘটনাটি ঘটেছে চাচল থানার গোপালপুরের খরবা গ্রাম। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

নিজস্ব সংবাদদাতা, মালদা, ৪ নভেম্বর; পারিবারিক বিবাদের জেরে পুত্রবধূকে খুন করার অভিযোগ উঠল শাশুড়ির বিরুদ্ধে। গলায় ফাঁস দিয়ে খুনের অভিযোগ । ঘটনাটি ঘটেছে চাচল থানার গোপালপুরের খরবা গ্রাম। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

মৃত গৃহবধূর নাম শম্পা সাহা বয়স ২৪ বছর। মেয়ের বাবা লক্ষণ সাহা জানায় দেড় বছর আগে চাঁচোলের খর্বা এলাকার বাসিন্দা রাজ কুমার সাহার সাথে তার মেয়ের বিয়ে হয়। এরপর থেকে তারা চাঁচোল এলাকার থানা পাড়াতে বাড়ি ভাড়া নিয়ে বসবাস করেন। তাদের একটি সন্তানও রয়েছে। সম্প্রতি রাজকুমার স্কুলের শিক্ষকতার চাকুরী পায়। ফলে তাকে বেশিরভাগ সময় বাড়ির বাইরেই থাকতে হত। এ বছর পুজোর ছুটিতে সে তার নিজের বাড়িতে আসে। এরপর রাজকুমার তাদের বাড়িতে যায়।

এদিন সকাল বেলা রাজকুমার বাজার করতে স্থানীয় বাজারে যায়। সেখান থেকে ফিরে এসে যাকে ঘরের মধ্যে তার স্ত্রী গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। প্রতিবেশীর কাছ থেকে মেয়ের বাবা খবর পেয়ে হাসপাতালে যায়। সেখানে গিয়ে দেখতে পায় মেয়ে শরীরে একাধিক জায়গায় মারধরের আঘাত রয়েছে। মেয়ের বাবার লক্ষণ সাহার অভিযোগ বিয়ের পর থেকেই মেয়ের সঙ্গে শাশুড়ি তারা মুন্নি সাহা একটি বাদানুবাদ চলছিল। ফলে কটুকথা সেই বচসা চরম আকার নিত। ফলে তাদেরকে বাড়ি ভাড়া নিয়ে অন্যত্রে থাকতে হয়। এই বিবাদের ফলে তাকে মারধোর করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে খুন করেছে শাশুড়ি তারা মুন্নি সাহা।

গোটা ঘটনায় লক্ষণ সাহা মুন্নি সাহা সহ ৫ জনের নামে চাঁচোল থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। যদিও গোটা ঘটনা নিয়ে জেলার পুলিশ সুপার অর্ণব ঘোষের কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

See More

Latest Photos