উত্তর মালদার বিজেপির প্রার্থী হিসেবে খগেন মুর্মুর নাম ঘোষণা হতেই স্থানীয় দলের কর্মীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ-বিক্ষোভ

Zoom In Zoom Out Read Later Print

খগেন মুর্মুর মতে, বিজেপি দলের মধ্যে কোন ক্ষোভ বিক্ষোভ নেই। কংগ্রেস ও কংগ্রেসের কিছু কর্মীরা কুৎসা করে বিজেপি সম্বন্ধে মিথ্যা বার্তা দিচ্ছে মানুষকে। মানুষ ভোট বাক্সে এর যোগ্য জবাব দেবে।

নিজস্ব সংবাদদাতা, মালদা, ২২ মার্চ;

মালদা জেলায় প্রার্থী পদ নিয়ে বির্তকের মধ্যেই কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব ঘোষণা করলো মালদার দুই লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী। আর এর পর থেকে জেলার উত্তরের প্রার্থী নিয়ে নিচু তলার কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ বিক্ষোভ শুরু হয়েছে।যদিও দক্ষিণের প্রার্থী নিয়ে এখনো সেভাবে বিরোধীতার কোন ছাপ জেলা বিজেপির মধ্যে দেখা যায়নি। মালদা জেলার দুই কেন্দ্রের প্রার্থী জয়ের ব্যাপারে নিশ্চিত।

সম্প্রতি হবিবপুরের বিধায়ক খগেন মুর্মু সিপিএম ছেড়ে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান। আর যোগদানের খবর মালদা এসে পৌঁছাতেই জেলার অন্দরে ঘুরতে থাকে উত্তর মালদা কেন্দ্রের প্রার্থী হচ্ছেন খগেন মুর্মু। আর এই নিয়ে নিচু তলার বিজেপি কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছিল। পাশাপাশি জেলা নেতৃত্ব তার প্রার্থী হওয়া নিয়ে প্রকাশ্যেই মুখ খুলেছিলেন। সেই সময় জেলা সভাপতি সঞ্জিত মিশ্র বলেছিলেন,খগেন মুর্মু বিজেপিতে যোগদান করছেন এই কথা বেশ কিছুদিন ধরেই মালদায় ঘুরে বেড়াচ্ছিল। তিনি উত্তরের প্রার্থী হবেন মৌসম নুরকে জেতানোর জন্য। এই নিয়ে প্রশ্নও তোলেন তিনি। দলীয় নেতৃত্ব কতটা মেনে নেবে তাও যথেষ্ট সন্দিহান রয়েছে। তবে জেলা সভাপতি ও দলের সৈনিক হিসেবে ইচ্ছা না থাকলেও অনেক কিছু করতে হয়। উত্তর ও দক্ষিণ মালদা কেন্দ্রের বৃহস্পতিবার প্রার্থী ঘোষণা হতেই ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে জেলা সভাপতি সঞ্জিত মিশ্র বলেন, কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব যা সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেই মত কাজ করা হবে। নিচু তোলার মানুষকে বোঝানো হবে। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নির্দেশ অনুযায়ী দলীয় কর্মীদের নিয়ে ভোটের প্রচার করা হবে।

যদিও প্রার্থী ঘোষণার পর উত্তর মালদা বিজেপি কর্মীরা ক্ষোভে ফুঁসছেন। তাদের দাবি খগেন মুর্মু উত্তর মালদা কেন্দ্রে মানুষের সঙ্গে জনসংযোগ যথেষ্ট কম রয়েছে। পাশাপাশি তিনি সিপিএমে থাকাকালীন যে সমস্ত কাজ করেছিলেন তা মোটেই উত্তরের মানুষের জন্য করেননি। ফলে মানুষের মধ্যে যথেষ্টই ক্ষোভ রয়েছে। সেক্ষেত্রে যথেষ্ট ব্যাকফুটে রয়েছে। তবে আমাদের কর্মীরাকে কতটা তার হয়ে প্রচার করবে সেটাই এখন প্রশ্নের মুখে।

অন্যদিকে দক্ষিণ মালদা কেন্দ্রের প্রার্থী হয়েছেন শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরী। তবে তার প্রার্থী পদকে জেলা বিজেপি নেতৃত্ব মেনে নিয়েছে। বিজেপি নেতৃত্বের দাবি দক্ষিণ মালদা কেন্দ্রে যোগ্য প্রার্থী দিয়েছেন কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। সে ক্ষেত্রে দক্ষিণ মালদাতে তার জয় নিশ্চিত। দক্ষিণ মালদার প্রার্থী শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরী বলেন, দক্ষিণ মালদা কেন্দ্র গঙ্গা ভাঙন ও ভিন রাজ্যের শ্রমিকের কাজে যাওয়া মানুষের বসবাস বেশি। এলাকায় কোন কর্মসংস্থান নেই। মানুষ সমস্তটাই দেখেছে। এবার মানুষ দক্ষিণ মালদাতে বিজেপিকে চাইছে। আমি তাদের জন্য লড়াই করব। মানুষই আমার জয় নিশ্চিত করে দিয়েছে।

উত্তর মালদা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী খগেন মুর্মু বলেন, যেসব ক্ষোভ-বিক্ষোভের কথা বলা হচ্ছে তা সম্পূর্ণ বিরোধী দলের চক্রান্ত করে ও ষড়যন্ত্র করে করছে। বিজেপি দলের মধ্যে কোন ক্ষোভ বিক্ষোভ নেই। তবে এসব ভুলে গিয়ে নিচুতলা থেকে উচু তলার কর্মীরা ইতিমধ্যে আমার হয়ে প্রচার শুরু করেছেন। তৃণমূল কংগ্রেস ও কংগ্রেসের কিছু কর্মীরা কুৎসা করে বিজেপি সম্বন্ধে মিথ্যা বার্তা দিচ্ছে মানুষকে। মানুষ ভোট বাক্সে এর যোগ্য জবাব দেবে।

See More

Latest Photos